রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:৫৫ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রি লাভ গবেষক এস এম শাহনূরের তিন দিনের ট্যুরিস্ট মেলায় টুরিস্ট পুলিশের সরব উপস্থিতি ভারতীয় পর্যটকদের বরণ করে নিল ট্যুরিস্ট পুলিশ আজ চাষারপুত খ্যাত কবি ও চলচ্চিত্রকার মাসুদ পথিকের জন্মদিন ট্যুরিস্ট সুবিধা বাড়াতে প্রশিক্ষণের উপর অতিরিক্ত আইজিপির গুরুত্ব আরোপ পর্যটন শিল্পের মহাপরিকল্পনা শীর্ষক সেমিনার পর্যটন পুলিশ হেডকোয়ার্টারে ৪০তম বিসিএস পুলিশ কর্মকর্তারা আজ ট্যুরিস্ট পুলিশ প্রধানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন সাহিত্যতত্ত্বে আমার অতৃপ্তি -হাসনাইন সাজ্জাদী বিশ্বসাহিত্যে বাংলাদেশের বিজ্ঞান কবিতা আন্দোলন -হাসনাইন সাজ্জাদী ঢাকায় বসেও মন উড়ে গিয়েছিল ভার্জিনিয়ার ডিসি বইমেলায় -হাসনাইন সাজ্জাদী
নারীবাদী সভ্যতা -তাসনিয়া রহমান

নারীবাদী সভ্যতা -তাসনিয়া রহমান

নারীবাদী সভ্যতা

তাসনিয়া রহমান

নারী মাত্রই কোমল, মমতাময়ী, স্নেহশীল, ত্যাগী। সমাজ এবং ধর্ম কখনোই নারীদের আত্মনির্ভরশীল হতে দেয় না, যদি-ও আমরা বর্তমানে দেখি যে অনেক নারী ডাক্তার, উকিল, পুলিশ, শিক্ষক, চাকুরীজীবি, ব্যাবসায়ী…
তবুও সিংহভাগ নারী অর্থনৈতিক ভাবে পরনির্ভরশীল, বেকার, দরিদ্র।
সমসাময়ীক কালে আমরা মুক্তচিন্তার বা নারীবাদী কিছু গোষ্ঠীকে দেখি যেখানে কিছু চক্র নারীদের ধর্মীয়, সামাজিক, আইনগত গন্ডীর বাইরে নিয়ে লিভ টুগেদারে প্রতি আগ্রহী করে তুলতে চেষ্টা চালাচ্ছে। এবং ফ্রী সেক্স লাইফ উপভোগের উপকারিতা সম্পর্কে সদা সর্বদা নারীদের জাগ্রত করার জন্য প্রচেষ্টা করে যাচ্ছে।

লিভ টুগেদার বা চুক্তিহীন শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের প্রতি ৮০ ভাগ পুরুষ আকৃষ্ট।

যারা চায় দায়িত্ব, কর্তব্য, সম্পর্কের বেড়াজালে বন্দী না থেকে এ ফুল থেকে ও ফুল ঘুরে বেড়াতে।

অথচ তারা চিন্তাই করে না বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে ক’জন নারী স্বনির্ভর? ক’জন নারী অর্থনৈতিক ভাবে স্বচ্ছল?

পুরুষেরা এরকম মানসিকতা নিয়েই বেড়ে ওঠে যে, পুরুষ মানেই বহুগামী…
নারীরা পুরুষের ভোগ্যপণ্য।

তাই পরিবেশগতভাবে পাওয়া লালায়িত পৈশাচিক মানসিকতা পুরুষদের ইন্ধন দেয় ভালোবাসা ও দায়িত্ব পালন না করে কৌশলে নারীকে সহজলভ্য করে তোলা।

সমাজের ঐ শ্রেণীর পুরুষেরা এ কথা চিন্তাও করে না লিভটুগেদার করে একটি নারীকে ছেড়ে দিলে পরবর্তীতে ঐ নারীর পরিনতি কি হতে পারে!

উন্নত দেশের নারীদের মতো আমাদের দেশের নারীরা স্বাবলম্বী না।
পুরুষদের ভার্জিনিটির পরীক্ষা দিতে হয় না কিন্তু নারীকে তার সম্মুখীন হতে হয়। রোজগার করা নারীরা এখনো পরজীবি।

নারীদের জন্মের পর থেকে ত্যাগ শেখানো হয়, বোঝানো হয় তার সীমা ও পরিসীমা। এবং নারীকে এটাও মেনে নিতে প্রস্তুত করা হয় যে পুরুষ মাত্রই বহুগামী।

আধুনিক সমাজ ও সেকুলার রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা হোক তা আমিও চাই
কিন্তু তার মানে এই না যে আধুনিকতার ও মুক্তচিন্তার নাম করে অবাধে অস্বাস্থ্যকর নোংরা ভোগী চেতনার বশবর্তী হয়ে নারীদের ভক্ষণ করবেন।

স্থান কাল পাত্র ভেদে মানবিক ও চৌকস হওয়া বাঞ্ছনীয়

যাদের কাছে মন অপেক্ষা দেহ ভোগ প্রিয় তাদেরকে পশু ভিন্ন অন্য কিছু ভাবতে পারিনা।

যারা এ জাতীয় প্রাণী তাদের মুখে নারী স্বাধীনতা ও নারী জাগরণের বানী শুনতে কেমন লাগে?
নাস্তিক, আস্তিক, ধর্ম বিশ্বাসী বা অবিশ্বাসী নির্বিশেষে যে কোনো পেশার অধিকাংশ পুরুষ দৃষ্টি ও মানসিকতায় একতরফা ভোগবিলাসীতায় অভ্যস্ত

শারীরিক চাহিদা নারী পুরুষ উভয়ের

কে ভোগ করবে এবং কে উপভোগ করবে এটা একান্তই পুরুষই নির্ধারণ করবে এই চিন্তা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে

দায়িত্ব পালন করতে হয় না বলে লিভ টুগেদার পুরুষদের কাছে জনপ্রিয় হলেও আরেক শ্রেণীর পুরুষ দেখা যায় যারা কোনোভাবে নারীদের স্বাবলম্বী হতে দিতে চায় না, নারীর ইচ্ছে ও ভালোলাগাকে একান্তই নিজ হস্তে নিয়ন্ত্রণ করতে চায় তাদেরও উচিৎ নারীদের মানুষ হিসেবে সম্মান করা ও বাঁচতে দেয়া, জীবিত থাকা মানেই বেঁচে থাকা নয়

ধর্ম দেখিয়ে বা আধুনিকতা দেখিয়ে যারা নারীকে সহজলভ্য করতে চায় তাদেরকে চিহ্নিত করুন ও ঘৃণা করুন, তাদের চিকিৎসা করুন

মুক্তমনা সমাজের যে সকল পুরুষ নারীদের মানসিক ভাবে দক্ষ আলোকিত ও বিজ্ঞান মনস্ক করার চেয়ে পোশাকে উন্মুক্ত ও শারীরিক সম্পর্কে অবাধে যৌনতায় লিপ্ত হতে প্ররোচিত করে তাদেরকে বয়কট করুন

**মাঝেমধ্যে রথের চাকা উল্টো ঘুরলে মন্দ হয় না😜

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesbazar_brekingnews1*5k
© All rights reserved © 2020
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD