মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০৮:১৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
মাংকি ট্রায়াল, সমাজ বাস্তবতা ও একজন বিজ্ঞান সমালোচক আবু সাঈদ তুলু মাংকি ট্রায়াল,সমাজ বাস্তবতা ও একজন বিজ্ঞান সমালোচক আবু সাঈদ তুলু কলকাতার অক্ষরবৃত্ত প্রকাশনা থেকে হাসনাইন সাজ্জাদী’র ‘কবিতায় বিজ্ঞান অ-বিজ্ঞান’ প্রকাশিত। আমাজন সহ পাওয়া যাচ্ছে সকল অনলাইন মাধ্যমে ‘ দুর্ঘটনায় পড়লেন বিজ্ঞান কবিতা আন্দোলনের আন্তর্জাতিক শুভেচ্ছা দূত ড. চন্দন বাঙ্গাল আমার কবিতাভাবনা ও বিজ্ঞানকবিতা -হাসনাইন সাজ্জাদী জাতির পিতার জন্য দোয়া কামনার মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধু টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার্স এসোসিয়েশনের ইফতার অনুষ্ঠিত জাতির পিতার জন্য দোয়া কামনার মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধু টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার্স এসোসিয়েশনের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত বিশ্বনেতার ১০২তম জন্মদিনে বিনম্র শ্রদ্ধা শতবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়; নবাব সলিমুল্লাহ ও বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন কবিতাবিজ্ঞান দিয়ে বিশ্বসাহিত্যকে সমৃদ্ধ করেছেন হাসনাইন সাজ্জাদী- এস এম শাহনূর
বাড়ছে করোনা।প্রয়োজন সাবধানতা-আহমেদ পারভেজ জাবীন

বাড়ছে করোনা।প্রয়োজন সাবধানতা-আহমেদ পারভেজ জাবীন

যুক্তরাজ্য ও রাশিয়াসহ ইউরোপে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা নিয়মিত বাড়ছে । যুক্তরাজ্যে নতুন ভ্যারিয়েন্ট Delta AY.4.2 কে Variant of Interest (VOI) হিসাবে তলিকা ভুক্ত করা হয়েছ। Delta AY.4.2’র সংক্রামণশীলতা (transmissibility) অনেক বেশি, তার ধ্বংসকারী (infectivity) ক্ষমতা এখন জানা যায়নি। যুক্তরাজ্যে প্রতিদিন পঞ্চাশ হাজার নাগরিক বর্তমানে নতুন করে কোভিড১৯’এ আক্রান্ত হচ্ছে।
জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ডা. আহমদ পারভেজ জাবীন পূর্বপরকে বলেন, গত এক সপ্তাহে যুক্তরাজ্য, রাশিয়া ও অস্ট্রেলিয়ায় করোনাভাইরাসে জনগণ বেশ আক্রান্ত হয়েছে। ডাটা বিশ্লেষণ করে দেখা যাচ্ছে যুক্তরাজ্যে কোভিড১৯’এ আক্রান্তের মধ্যে ৭ থেকে ৮ শতাংশ Delta AY4.2 দ্বারা সংক্রামিত হয়েছে, নতুন এ প্রজাতির ডেল্টা ভাইরাসের কারণে কত শতাংশ মৃত্যু্বরণ কেরছে তা এখনেআমাদের অজানা, তাই আমরা আতঙ্কিত । তিনি আরও বলেন, যুক্তরাজ্য থেকে আগত সকল যাত্রীকে কোভিড১৯ ‘র ছাড়পত্র ভালোভাবে পরীক্ষার পর পরিবার ও কর্মক্ষত্রে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হোক, প্রয়োজনে কোয়ারেন্টাইনে রাখা যেতে পারে।
তাঁর মতে টিকার কোন বিকল্প নেই, টিকাও দেশে আছে। টিকার সাহায্যে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে এন্টিবডি তৈরী করে শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে নেওয়া দরকার। ফলে কোভিড ১৯ হওয়ার সম্ভাবনা, কোভিড নিউমোনিয়ার তীব্রতা ও মৃত্যু হ্রাস পাবে। তাই দ্রুততম সময়ের মধ্যে আশি শতাংশের (৮০%) টিকাকরণের কাজটি সম্পন্ন করা প্রয়োজন। একই সাথে, ঘরের বাহিরে বের হলে মাস্ক পড়া, ১.৮ মিটার শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা, নিয়মিত বিরতিতে সাবান দিয়ে হাত ধোয়া (হাত সেনেটাইজ করা), জনসমাগম এড়িয়ে চলা, বদ্ধ ঘরে সকলে মিলে দীর্ঘক্ষণ অবস্থান না করা জনম্বাস্থ্য বিধি মানা প্রয়োজন।

সঠিকভাবে কাজগুলো করলে নতুন ভ্যারিয়েন্টের জন্য সংক্রামণের নতুন ঢেউ তৈরী হবে না, নতুন করে কোভিড ১৯ ঝুকি ও মৃত্যু (morbidity ও mortality) কমবে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesbazar_brekingnews1*5k
© All rights reserved © 2020
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD