বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০২:০৯ অপরাহ্ন

স্মরণ সভা বীর মুক্তিযোদ্ধা বদরুল হোসেন বদরুলের

স্মরণ সভা বীর মুক্তিযোদ্ধা বদরুল হোসেন বদরুলের

ইমরুল ইসলাম।। জুড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম বদরুল হোসেন বদরুলের স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে গত ২১ জানুয়ারি শনিবার।ভবানীগঞ্জ বাজারের বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী ছত্তার মিয়া সাহেবের তৃতীয় ছেলে। ১৯৪৮ সালের ১লা জানুয়ারী জন্মগ্রহন করেন।শৈশব ও কৈশোর জুড়িতেই কাটে। তিনি ১৯৬৪ সালে জুড়ি হাই স্কুল থেকে এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ন হয়ে সিলেট এমসি কলেজে ভর্তি হন এবং ছাত্রলীগের রাজনীতিতে অংশগ্রহন করেন। ১৯৬৯ সালে বিএ পাস করে তিনি জুরিতে আসেন এবং জুড়ি হাই স্কুলে শিক্ষকতা শুরু করেন। ১৯৬৯ সালের গন আন্দোলনে তিনি ছাত্রলীগের নেতা হিসাবে আমাদেরকে নিয়ে মিটিং করেন। গন আন্দোলনে জোরালো ভুমিকা রাখেন। ১৯৭০ সালের গন পরিষদ নির্বাচনে তিনি আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থীর পক্ষে মিছিল মিটিং করেন। ১৯৭১ সালে যুদ্ধ শুরু হলে তিনি ভারতে আশ্রয় নেন এবং মুক্তিযোদ্ধে অংশ নেন। তিনির বড় ভাই আব্দুল জলিল মাসুক ৪নং সেক্টরের সাব-সেক্টর কমান্ডার ছিলেন। দীর্ঘ নয় মাসের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ শেষ হলে তিনি দেশে ফিরে আসেন এবং পুনরায় জুড়ি হাই স্কুলে শিক্ষকতায় যোগ দেন। স্বাধীন দেশে তিনি রক্তেরাঙ্গা বাংলাদেশ,শহীদ তিতুমীর,একমুঠো ভাত নাটক তিনির পরিচালনায় মঞ্চায়ন করেন। তিনি একজন শিল্পী মনা লোক ছিলেন। ফুটবল,ভলিবল,ও ব্যাডমিন্টন খেলায় তিনি পরদর্শী ছিলেন,তিনির আয়োজনে বড় খেলা, টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হত। ১৯৭৬ সালে তিনি মৌলভীবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য পদে পদায়ন হন। ১৯৭৭ সালে তিনি পশ্চিম জুড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।১৯৮৬ সালে জেলা আওয়ামীলীগের তথ্য ও গবেষনা বিষয়ক সম্পাদক এর পদ লাভ করেন।
১৯৯১ সালে জেলা আওয়ামীলীগের শিক্ষা ও মানব সম্পদ গবেষনা বিষয়ক সম্পাদক হন।
২০০৪ সালে মৌলভীবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতির পদে পদায়ন হন।
জুড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের আহ্বায়ক ছিলেন।
২০১৯ সালে জুড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হন। জুড়ি উপজেলা জামুকার সভাপতি ছিলেন।ভবানীগঞ্জ বাজার জামে মসজিদের সভাপতি ছিলেন।
বদরুল হোসেন তিনির বর্নাড্য রজজনৈতিক জীবনে বহু প্রতিকুলতার সম্মুখীন হয়েছেন। মানুষের কল্যানে কাজ করেছেন। মানুষের সমষ্যার কথা শুনতেন এবং তার সমাধানের লক্ষে কাজ করতেন।
বিগত ৫ আগষ্ট ২০২২ সালে তিনি আমাদের ছেড়ে পরলোকে গমন করেন।
শিক্ষাগুরু রাজনীতিবিদের স্মৃতিকে ধরে রাখতে আমাদের কাজ করতে হবে। আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্ম যাতে তিনির সম্মন্ধে জানতে পারে তারজন্য জুড়ি ও বড়লেখার উন্নয়নের রুপকার পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রনালয়ের মাননীয় মন্ত্রী আলহাজ্ব শাহাব উদ্দীন এমপি মহোদয়ের নিকট আমি জোর দাবী জানাচ্ছি জুড়ি মডেল হাই স্কুলে একটি ভবন বদরুল হোসেনের নামে নাম করন করার জন্য। এবং ভবানীগঞ্জ বাজারের চৌমুনীচত্বর বদরুল হোসেন চত্বর নামে নাম করন করার জন্য।
বীর মুক্তিযোদ্ধা বদরুল হোসেন সাহেবের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করি। আল্লাহ তায়ালা তিনিকে জান্নাতুল ফেরদৌস দান করুন। আমীন।
ইমরুল ইসলাম,
যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক
জুড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগ।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesbazar_brekingnews1*5k
© All rights reserved © 2020
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD