মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:২৬ পূর্বাহ্ন

সুলেখক এডভোকেট সৈয়দ জয়নাল আবেদিনের মৃত্যু।। শোক ও শ্রদ্ধা -বায়েজীদ মাহমুদ ফয়সল

সুলেখক এডভোকেট সৈয়দ জয়নাল আবেদিনের মৃত্যু।। শোক ও শ্রদ্ধা -বায়েজীদ মাহমুদ ফয়সল

প্রবীণ আইনজীবী, সাংবাদিক-লেখক, গবেষক সৈয়দ জয়নাল আবেদীন’র মৃত্যুতে শোক ও শ্রদ্ধা

মৌলভীবাজারের প্রবীণ আইনজীবী, সাংবাদিক-লেখক, গবেষক সৈয়দ জয়নাল আবেদীন আর নেই। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।আজ সকাল ৬-৪৫ মিনিটে মৌলভীবাজারে একটি হাসপাতালে তিনি ইন্তেকাল করেছেন। আজ বিকেল সাড়ে ৩টায় মৌলভীবাজার টাউন ইদগাহে মরহুমের প্রথম জানাজা এবং পরে মৌলভীবাজার শহরের সন্নিকটে কুইসার গ্রামে দ্বিতীয় জানাজা শেষে পারিবারিক গোরস্থানে তাঁকে দাফন করা হবে।

উল্লেখ্য : এডভোকেট সৈয়দ জয়নাল আবেদীন একাধারে সুবক্তা, লেখক, প্রাবন্ধিক, গবেষক, ইসলামী চিন্তাবিদ, সমাজসেবী ও ইতিহাসবিদ ছিলেন। তাঁর চিন্তা-চেতনা ও কর্মের মাধ্যমে সমাজের একজন বরেণ্য ব্যক্তিত্ব হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন। তাঁর পৈত্রিক নিবাস সিলেট বিভাগের মৌলভীবাজার জেলার সদর উপজেলার ইটা কুইসারের ঐতিহ্যবাহী পীর ও সৈয়দ পরিবারে। তাঁর পিতা ছিলেন ইসলামী শিক্ষাবিদ মরহুম মাওলানা কারী সৈয়দ আবদুল গণি ও মাতা বৃটিশ আমলের ধর্মীয় শিক্ষয়িত্রী মরহুমা আলহাজ্ব বেগম তালিমুন্নেছা খানম। পিতা-মাতা উভয়েই ছিলেন দ্বীনের প্রতি নিবেদিতপ্রাণ।

সৈয়দ জয়নাল আবেদীনের এক ভাই ও এক ভাগ্নী রয়েছেন। তাঁর খ্যাতনামা ব্যক্তিত্ব, লেখক, সাংবাদিক, সমাজসেবী কবি কে. এম আবু তাহের চৌধুরী। তিনি ব্রিটেনের বাঙালি মুসলিম কমিউনিটিতে সম্মানজনক অবস্থান সৃষ্টি করেছেন তাঁর কর্মের মাধ্যমে। এডভোকেট সৈয়দ জয়নাল আবেদীন ৯ সন্তানের জনক। বৃহত্তর সিলেটের প্রথম মুসলিম রাজপরিবার, সিলেট ও তরপ বিজয়ী সৈয়দ নাছির উদ্দিন সিপাহসালার (রহ.) বংশীয় ও তরপ অধিপতি সৈয়দ মুসা উরপে ময়না ও মহাকবি সৈয়দ সুলতান ওরফে মিনার’র স্মৃতিবিজড়িত লস্করপুর সাহেব বাড়ির পুরাতন হাবেলী তথা পূর্ব হাবেলীর সুপরিচিত ব্যক্তিত্ব মরহুম দেওয়ান সৈয়দ ইমামুর রাজার কনিষ্ঠা কন্যা দেওয়ান সৈয়দা সাজেদা আক্তারের সাথে তিনি বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তাঁর পুত্রগণ যথাক্রমে সৈয়দ ইশতিয়াক জাকেরীন, সৈয়দ এহতেশাম আরেফীন, সৈয়দ নওশেন সালেহীন, সৈয়দ মুসফিকুশ শাকেরীন, সৈয়দ মুফলেহ উস সালেকীন ও কন্যাগণ হচ্ছেন সৈয়দা সালওয়া কুদসীয়া জাফরীন, সৈয়দা ফারহানা আফরীন, সৈয়দা শায়লা সানজিদা মেহরীন ও সৈয়দা বুশরা আইরীন।

এডভোকেট সৈয়দ জয়নাল আবেদীন শিক্ষা-সাহিত্য-সংস্কৃতিক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য অবদান রেখেছেন। তিনি অনেকগুলো গ্রন্থ রচনা করেছেন। স্কুলজীবন থেকেই তিনি সাহিত্যসেবায় মনোনিবেশ করেন। তিনি বিভিন্ন সাহিত্য সাময়িকীতে লেখালেখি করেন। এছাড়া তাঁর বিভিন্ন লেখা বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে। সমাজসেবায় তিনি বিশেষ অবদান রেখেছেন। পেশাগত জীবনে অত্যন্ত স্বচ্ছ-নির্মোহ-নির্লোভ সৈয়দ জয়নাল আবেদীন সকলের শ্রদ্ধার পাত্র। ব্যক্তিজীবনেও অত্যন্ত অমায়িক-বিনয়ী এবং সজ্জন সৈয়দ জয়নাল আবেদীন মানুষকে খুব সহজেই কাছে টেনে নেন।

এডভোকেট সৈয়দ জয়নাল আবেদীনের মতো মহৎপ্রাণ ব্যক্তিকে দেখতে গত ডিসেম্বর ২০২৩ খ্রি. গিয়েছিলাম তাঁর মৌলভীবাজারস্থ বাড়িতে। দীর্ঘদিন থেকে এই মানবদরদি ব্যক্তিত্ব অসুস্থতায় ভুগছিলেন। আমার সঙ্গে ছিলেন বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ ও গবেষক ইমাম প্রশিক্ষণ একাডেমি সিলেটের উপ-পরিচালক মাওলানা শাহ মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম। এডভোকেট সৈয়দ জয়নাল আবেদীন সম্পর্কে শাহ নজরুল ইসলামের মামা শ্বশুর। এইজন্য স্বভাবতই আমাদেরকে তিনি আন্তরিকভাবে সময় দেন। তাঁর সঙ্গে বিভিন্ন বিষয়ে আলাপ হয়। এ সময় তাঁর জ্ঞানের গভীরতা-প্রজ্ঞাকে উপলব্ধি করতে পারি। এডভোকেট সৈয়দ জয়নাল আবেদীনের মৃত্যুতে দেশ ও জাতি একজন কিংবদন্তি লেখক ও গুণী ব্যক্তিত্বকে হারালো। তাঁর শূন্যস্থান কখনো পূরণ হওয়ার নয়। আল্লাহ তায়ালা তাঁর প্রতি রহম করুন। আ-মি-ন।

————————
বায়েজীদ মাহমুদ ফয়সল
লেখক, প্রকাশক ও সংগঠক।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesbazar_brekingnews1*5k
© All rights reserved © 2020
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD