রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:৫৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রি লাভ গবেষক এস এম শাহনূরের তিন দিনের ট্যুরিস্ট মেলায় টুরিস্ট পুলিশের সরব উপস্থিতি ভারতীয় পর্যটকদের বরণ করে নিল ট্যুরিস্ট পুলিশ আজ চাষারপুত খ্যাত কবি ও চলচ্চিত্রকার মাসুদ পথিকের জন্মদিন ট্যুরিস্ট সুবিধা বাড়াতে প্রশিক্ষণের উপর অতিরিক্ত আইজিপির গুরুত্ব আরোপ পর্যটন শিল্পের মহাপরিকল্পনা শীর্ষক সেমিনার পর্যটন পুলিশ হেডকোয়ার্টারে ৪০তম বিসিএস পুলিশ কর্মকর্তারা আজ ট্যুরিস্ট পুলিশ প্রধানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন সাহিত্যতত্ত্বে আমার অতৃপ্তি -হাসনাইন সাজ্জাদী বিশ্বসাহিত্যে বাংলাদেশের বিজ্ঞান কবিতা আন্দোলন -হাসনাইন সাজ্জাদী ঢাকায় বসেও মন উড়ে গিয়েছিল ভার্জিনিয়ার ডিসি বইমেলায় -হাসনাইন সাজ্জাদী
সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি- আকলিমা বেগম

সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি- আকলিমা বেগম

সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি- আকলিমা বেগম

মুক্তিযোদ্ধাদের মৃত্যুর পর ‘গার্ড অব অনার’ দেওয়ার ক্ষেত্রে নারী কর্মকর্তাদের বিকল্প ব্যক্তি নির্ধারণে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটির । (১৩ই জুন২০২১)

এমন সুপারিশের কারণ জানতে চাইলে সংসদীয় কমিটির সভাপতি শাহজাহান খান বলেন, ‘মহিলা ইউএনও গার্ড অব অনার দিতে গেলে স্থানীয় পর্যায়ে অনেক প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয়। ‘মহিলারা জানাজায় থাকতে পারেন না’ তবুও মহিলা গার্ড অব অনার কেনো দেন, এরকম সমালোচনা এড়াতে এই সুপারিশ বলে জানান তিনি।

তার যুক্তি হলো নারীরা জানাজায় অংশ নিতে পারে না তাই এই সুপারিশ। নারী কেন জানাজায় অংশ নিতে পারে না ইসলামে এ প্রশ্ন ধর্মীয় । রাষ্টের পরিচালনায় সে প্রসঙ্গ আনলে বলতে হয় , ইসলামে নারী নেতৃত্বও তো হারাম, শাহজাহানখান কি তাহলে আমাদের নারী প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বের বিরুদ্ধেও সুপারিশ করবেন?

আমাদের দেশ কোন ইসলামি রাষ্ট্র নয়। এর আগেও সংসদে জামাত বিএনপি আমলে এক মিনিট নীরবতা , মাথা ঝুঁকিয়ে অভিবাদন বন্ধ করা হয় ইসলামের অজুহাতে। অথচ এসব কখনই ইসলাম বিরুদ্ধ ছিলনা, বরং একটি বহুধর্মীয় সমাজে এইমত আচরণগুলোই সর্বজনগ্রাহ্য। সেইরকম ভাবলে আমাদের বহু রীতি নীতি বদল করতে হবে যা অইসলামীয়।

কিন্তু এইসব বিষয় কোনটও যৌক্তিক নয় এমন কি ইসলামীয় নয়। বহু রীতি ইসলামের নামে চলে আসছে। আবার বদলও হয়। এতদিন মাহরাম ছাড়া নারীদের হজ্ব হতো না ,এবার হজ্বে মাহরাম ছাড়াই একলা নারীরও হজ্ব করা যাবে বলে সৌদি কতৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

কিন্তু আমাদের দেশ চলছে মদিনা সনদে। শিক্ষাব্যবস্থায থেকে জাতীয় জীবনের সর্বত্র ধর্মের ক্রমবর্ধমান প্রভাব, মাদ্রাসা শিক্ষাকে জাতীয় শিক্ষার সাথে একীভূত করা, মাদ্রাসা বোর্ডের সুপারিশে বাংলা সিলেবাস বদল করে শিক্ষাকে ক্রমশ সাম্প্রদায়িক করা, ,মসজিদ কেন্দ্রিক এবদেতায়ী শিক্ষা, এক বিশেষ সম্প্রদায়িক দৃষ্টিভঙ্গিতে তাদের পরিচালনা করা, হাফেজ্জী হুজুর, হেফাজতে ইসলাম সহ বিভিন্ন মুসলিম ধর্মীয় সংগঠনকে পৃষ্ঠপোষকতা, আঁতাত করা, হাজার২ কোটি টাকায় দৃশ্যনন্দন মসজিদ সেন্টার, প্রভৃতি কার্যক্রম এর দ্বারা এখন পাকিস্তান আমলে চাইতেও পাকিস্তানী


আওয়ামী লীগও এখন বাঙালী জাতীয়তাবাদ ছেড়ে ‘বাঙালি মুসলিম জাতীয়তাবাদ’ পরিণত । শাহজাহান খানদের এইমত সুপারিশ হয়তো তারই সর্বসাম্প্রতিক উদাহরণ।
আমার এক বন্ধুর ওয়াল থেকে সংগৃহীত।
আমি কপি করে পোষ্ট করলাম।
জয় বাংলা।
জয় বঙ্গবন্ধু।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesbazar_brekingnews1*5k
© All rights reserved © 2020
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD