শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:১৪ পূর্বাহ্ন

সুখ কাহন- আঞ্জুমান আরা খান কলি

সুখ কাহন- আঞ্জুমান আরা খান কলি

“হেসে হেসে বলেন ধনী
প্রচুর আছে মোর ধন;
সবকিছু আছে তবো
সুখী নেই মোর মন!”

মানুষ সম্পদের মোহে বিভোর। আবহমানকাল থেকে মানুষ হন্যে হয়ে সম্পদ অর্জনের পিছে ছুটে চলেছে। উদ্দেশ্য সুখী হওয়া। অবশ্য সকলে বিত্ত বৈভবে সুখী হতে চাননি বা পারেননি। তবে অধিকাংশেরই একমাত্র চাহিদা বিশাল সম্পদের মালিক হওয়া। রাজা-প্রজা, ধনী-গরিব, রাষ্ট্রপ্রধান থেকে শুরু করে দেশের খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষ পর্যন্ত যার যা আছে, তার থেকে আরো বাড়াতে চায়। ফুটপাতের ছিন্নমূল লোকেরা চায় একটা কুড়ে ঘর, কুড়ে ঘরের মালিক চায় টিনের ঘর, টিনের ঘর ওয়ালা চায় একটা পাকা দালান, পাকা ঘরের মালিক চায় একটা ডুপ্লেক্স বাড়ি, এ ধরনের লোকেরা চায় গুলশান-বনানী-ধানমন্ডি-উত্তরায় বাড়ি। আর তারা চায় বিশ্বের নামিদামি শহর গুলোতে বসবাস করার যোগ্যতা। এভাবে চাহিদার অন্ত নেই! সবাই শুধুমাত্র সুখ চায়। আর এ সুখের জন্যে সম্রাট, পাপিয়া, সাবরিনা, শাহেদরা চেষ্টা করেছিল মাত্র। যেভাবে হোক যদি একটু সুখের নাগাল পাওয়া যায়। তাদেরইবা দোষ কি? সুযোগ পেলে কে না চায়! অনেকেরই তো সুইজ ব্যাংকে কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা, বিদেশে রাশি রাশি বাড়ি-গাড়ি ইত্যাদি রয়েছে। ‘সবাই তো সুখী হতে চায়, কেউ সুখ পায়, কেউ পায় না।’

আসলে সুখ জিনিসটা কি? এটা কি কিনতে পাওয়া বা ধার নেওয়া যায় কিনা? সত্যি বলতে সুখ কিনতে পাওয়া যায় না বা কারো কাছ থেকে ধার নেওয়াও যায় না। সুখ হলো মানুষের ভিতরের একটি ব্যাপার। সুখী হতে হলে বেশি কিছু লাগে না, শুধুমাত্র একটা সুস্থির মন হলে চলে। জর্জ বার্নার্ড শ এর মতে- ‘জীবনের দুটি দুঃখ আছে। একটি হল তোমার ইচ্ছা অপূর্ণ থাকা, অন্যটি হলো ইচ্ছা পূর্ণ হলে আরেকটির প্রত্যাশা করা।’ আর এজন্যেই ইংরেজ কবি উইলিয়াম শেক্সপিয়ার বলেছিলেন, “আমি সবসময় নিজেকে সুখী ভাবি, কারণ আমি কখনো কারো কাছে কিছু প্রত্যাশা করি না, কারো কাছে কিছু প্রত্যাশা করাটা সবসময়ই দুঃখের কারণ হয়ে দাঁড়ায়।” প্রত্যাশা অনুযায়ী প্রাপ্তি না হলে, বিড়ম্বনা তৈরি হয়। এটা শুধু যে অর্থের দিক থেকে তা নয়, অর্থ ছাড়াও অন্য বিষয় হতে পারে, যেমন- প্রেম। কেউ কেউ প্রেম দিয়ে সুখী হতে চায়, আসলে অর্থ না থাকলে তাতেও প্রকৃত সুখ পাওয়া যায় না। এজন্যে বিশ্ব কবিকে বলতে শুনি- “এরা সুখের লাগি চাহে প্রেম, প্রেম মেলে না, শুধু সুখ চলে যায়। … কেবলই মায়ার ছলনা !!”

তাহলে প্রকৃত সুখ কোথা গেলে পাই ? পূর্বেই বলেছি, বিত্ত-বৈভবে আসল সুখ নেই! কারণ এতে প্রত্যাশার শেষ নেই। দেশ-বিদেশের বড় বড় ধনী ব্যক্তিরা, যেমন- মুসা বিন শমসের, সালমান এফ রহমান, তারেক রহমান, মুকেশ আম্বানি, দিলীপ সাংভীর, জ্যাক মা, বিল গেটস, মার্ক জাকারবার্গ, জেফ বেজোস এর মত দেশ তথা বিশ্ব সেরা ধনী ব্যক্তিগণ কি সুখে আছেন ? না তারাও সুখে নেই। তাদের সম্পদ আরো বৃদ্ধির জন্যে মধ্যবিত্তের শেয়ার মার্কেট লুট করতে কুণ্ঠাবোধ করে না। গরিবের সর্বস্ব ছিনিয়ে নিয়ে হলেও তাদের আরও চায়।
ভোগবাদ

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesbazar_brekingnews1*5k
© All rights reserved © 2020
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD