রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:২৩ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
সমকালীন বিশ্বসাহিত্যে বাংলা সাহিত্যের বড়ো পরিচয় হাসনাইন সাজ্জাদী’র বিজ্ঞানকবিতা।। ড.চন্দন বাঙ্গাল, আন্তর্জাতিক দূত-বিজ্ঞানকবিতা আন্দোলন

সমকালীন বিশ্বসাহিত্যে বাংলা সাহিত্যের বড়ো পরিচয় হাসনাইন সাজ্জাদী’র বিজ্ঞানকবিতা।। ড.চন্দন বাঙ্গাল, আন্তর্জাতিক দূত-বিজ্ঞানকবিতা আন্দোলন

  • সমকালীন বিশ্বসাহিত্যে বাংলা সাহিত্যের বড়ো পরিচয় হাসনাইন সাজ্জাদী’র বিজ্ঞানকবিতা।।
    ড.চন্দন বাঙ্গাল, আন্তর্জাতিক দূত-বিজ্ঞানকবিতা আন্দোলন

    ইঞ্জিনিয়ার বাকের সরকার বাবর।।
    গত কয়েকদিনের সংক্ষিপ্ত বাংলাদেশ সফরে বিভিন্ন জায়গায় সাহিত্যমোদী ও গবেষকদের মধ্যে সৌজন্য সাক্ষাৎ এবং কয়েকটি আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিজ্ঞান কবিতা আন্দোলনের আন্তর্জাতিক দূত,বাংলা সাহিত্যের বিশিষ্ট গবেষক ও পশ্চিম বঙ্গ রাজ্যের বাঁকুড়া জেলার রামানন্দ কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ড.চন্দন বাঙ্গাল বলেছেন -সমকালীন বিশ্বসাহিত্যে বাংলাসাহিত্যের বড়ো অবদান হচ্ছে হাসনাইন সাজ্জাদী’র বিজ্ঞান কবিতা আন্দোলন।বিজ্ঞানকবিতা এখন বাংলাসাহিত্যের বড়ো পরিচয়।বৈষ্ণব সাহিত্যের স্রষ্টা শ্রী চৈতন্য দেবের পিতৃভূমিতে জন্মগ্রহণকারী হাসনাইন সাজ্জাদী বিজ্ঞানবাদ,বিজ্ঞানকাব্যতত্ত্ব ও সাবলীল ছন্দের জন্ম দিয়েছন।বৈষ্ণব সাহিত্যের সূতিকাগার থেকে এসেছে বিজ্ঞানকবিতার ধারণা। বাংলাসাহিত্য আজ একাকার সারা বিশ্বে।যেমন সিলেট তেমন বাঁকুড়া।যেমন ঢাকা তেমন কলকাতা।দিল্লি বলেন আর সিডনি বলেন,টরেন্টো, ইংল্যান্ড কিংবা নিউইয়র্ক সবখানেই বাংলা সাহিত্য আজ বিজ্ঞানময়।সর্বত্রই সাইন্স পোয়েট্রি আজ বাংলা সাহিত্য থেকে ধার করা, হাসনাইন সাজ্জাদী থেকে ধার করা।
    ভারতবর্ষে বিজ্ঞান কবিতা নিয়ে পিএইচডি ও ডিলিট হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন বিজ্ঞানমনস্কতা ছাড়া আগামী প্রজন্ম মানবিকতা শিখতে পারবে না।
    ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক ব্যাবসা বিদ্যার সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক রাকিবুল ইসলাম ভূইয়া কিংবা পর্যটন ডিপার্টমেন্টের চেয়ারম্যান অধ্যাপক সন্তোষ কুমার দেব এর সঙ্গে সাক্ষাৎ অথবা সদ্য মুলতবি করা জাতীয় কবিতা পরিষদের টিএসসি উৎসব কার্যালয় এ শিশুসাহিত্যিক আমীরুল ইসলাম, শিশু সাহিত্যিক আসলাম সানী,বাচিক শিল্পী ফয়জুল আলম পাপ্পু,জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্ত নির্মাতা ও কবি মাসুদ পথিক, শিশু সাহিত্যিক হানিফ খান প্রমুখের সঙ্গে তার সাক্ষাৎ হয় একই প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ভ্রমণ কালে।
    এছাড়া একটি আয়োজনে তাকে এবং তার সহধর্মিণী মানসী দত্তকে স্মারক সম্মাননা ও সার্টিফিকেট তুলে দেন শুদ্ধতার কবি,বাংলা একাডেমি ও একুশে পদক প্রাপ্ত মনীষী অসীম সাহা।
    বিশ্ববাঙালি সংসদের সভাপতি কবি ও সাংবাদিক লোকমান হোসেন পলা,নাগরি গবেষক মোস্তফা সেলিম, জয়বাংলা লেখক পর্ষদের সাধারণ সম্পাদক কবি গিয়াসউদ্দিন চাষা,সংগঠক শাহাদাত জয়,সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী আতিক আজিজ,কবি ও কণ্ঠশিল্পী মিঠা মামুন,কবি নাদিম মাহমুদ,ছাত্রনেতা সাকিব হোসেন রাজু,পণ্ডিত কার্ত্তিক কর্মকার,কবি ফাতেমাতুজ্জোহরা এনি,সম্পাদক ও গীতিকার শিখা সরকার,কবি জিসান মতিউর প্রমুখ নানা আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন।আর বিজ্ঞানবাদ, বিজ্ঞানকাব্যতত্ত্ব ও সাবলীল ছন্দের উপস্থাপক হাসনাইন সাজ্জাদী প্রায় সব আয়োজনেই ছিলেন স্বতঃস্ফূর্ত।
    যৌথভাবে এসব আয়োজনে ছিল অনুপ্রাস জাতীয় কবি সংগঠন,ইউ আর আই সায়েন্স পোয়েট্রি বাংলাদেশ সিসি,জয় বাংলা লেখক পর্ষদ,বিজ্ঞানবাদ চর্চাকেন্দ্র ও বিজ্ঞান কবিতা আন্দোলন।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesbazar_brekingnews1*5k
© All rights reserved © 2020
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD