বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:২১ পূর্বাহ্ন

বইয়ের মোড়ক -শিশির বিন্দু

বইয়ের মোড়ক -শিশির বিন্দু

বইয়ের মোড়ক -শিশির বিন্দু

বইয়ের মোড়ক

শিশির বিন্দু

শীতল পরশে মাথা গোজার ঠাঁই আর আজকাল পাওয়া যায় না,
বিবর্নতার মুর্ছিত নয়ন পায়ের বাইরে নিমগ্নতা পায় না,
সবার এপিটাফের মায়ার বুনন কায়েকি কায়দায় হাত মাড়ায় না,
এদিন কোনদিন হবে যে-দিন
সবার বাস শুরু হবে মনন মাস্তুলে নিশানা মাতিয়ে ভুলের গংগায় মাছ বিকিয়ে,
কফিনের দীর্ঘ শ্বাস জানান দেবে সবাই অন্ধকারেই নিশ্চুপ থাকাকে শ্রেয় মনে করেছে,
চুরমার বাস্তবতা হেলে পড়েছে বার্লিনের দেয়াল ঘেষে,
প্রিয়দের ভালোবাসা মনের টাইগ্রিস কাঁপায় না,
রক্তের নোনা আধ স্বাদকে করছে জুলুম,
তুতানখেমুদের তুত রাজত্ব ভাসছে দিগ্বিদিক,
আলসে ঘরে আগুনের
বিতান কষ্টের আওভানে শব্দ বিভ্রাটে মশগুল,
কিছুটা সুখ দিয়ে চলে গেছে অনেক পাপীষ্ঠের মা-ও তান।
খুজেছি দুখের আস্তর গুনেছি আস্তিক স্বত্বায় নিভু নিভু
আঘাতপ্রাপ্ত বিশ্ব যোজনা,
অন্তরমের গণিত সুন্দরমের
বিক্রিয়াজাত গলঃ ধকরনের অপপ্রয়াস।
খুজে দেখ পাবে নিরালে তোমার বিছানায় তিলকে তাল করার এক বিশাল উইকিপিডিয়া যেখানে জখমি তোমার মনএখনো ইউফ্রিটিসের পেন্ডুলাম নাড়ায়।
সবাই যখন পাশে আর থাকবে না মশা কিংবা মাছি কিংবা তেলাপোকার ডারউইন মিথ তোমাকে সাড়া দেবে।
বিশালদেহী এক ক্লিও তোমায় কবিতা বানায়।
জিন গুলো সায় দেয় চিরঞ্জীব হতে চায়।সভ্যতার ট্রানজিট বেদনায় হারায়।
এই অকাল বোধনে শিশির নির্জীব তবে ক্ষান্ত নেই নিরক্ষতার সোশ্যাল ডিজিজের ইউনিফর্ম এ।
সবাই দাঁড়িয়ে আছে পিটিশনের রেড ক্লাচের গ্রীন সিগন্যালে।
হলুদের আড়ত, লালের বাড়াবাড়ি, সবুজের নব্যতা
শিংগা ফুকিয়ে দৌড়ুচ্ছে,ঘুম পাক আর নাই বা পাক,
ঘুমন্ত জাতি কাতরাচ্ছে, মানিয়ে নিচ্ছে অবলুপ্ত মাটির ঘ্রান,
স্বাধীনতা প্রাগৈতিহাসিক হোক, হোক মনের মিসাইল।
মুক্তি তৎপর হোক।হোক বইয়ের মোড়ক। বিশ্ব চেতন অনুভুতি সুত হোক।
দ্বিতীয় আদেম খুড়িয়ে হাটুক নতজানু হোক নুত।
প্রাক,প্রকট ডারউইন ফেরাউনদের খুজে বেড়াক।
কেউ না জেনারেল ওয়ার্ডের হিসাব মেলাতে পারে না এ
কেমন জিঘাংসক ওয়াদা,
মাটির পুতুল আজো নড়ে চড়ে
বিশ্ব বিভ্রান্তিকর পরিস্থিতিতেও একজন সিসিলিয়া হয়ে ঘুড়ে।জমায় রদবদল,
ইতিহাসের ফাঁকা মাঠ।
বইয়ের মোড়ক আর কতদিন লাগবে উন্মোচিত হতে কেউ জানে না।
সরে জামিনে তদন্ত করছে সরকার।ইতিহাস স্বাক্ষী থাক।নিলামে সম্মান উঠুক তবু মুক্তি মুক্তি পাক। স্বাধীনতা দ্বারে দ্বারে ত্রিবস্তয়া না হোক।নবেদ,কোবেদ,
ত্রিবোদা,জিবুর সব খুজেও চির যৌবনা,চিরঞ্জীব হবার
মাত্রা নাড়াক সেই বইয়ের মোড়ক।
আরোহিত হোক জীবনের পয়গাম নিকিরিত গ্রীবা দেশ অন্তর্ধানে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesbazar_brekingnews1*5k
© All rights reserved © 2020
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD