শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ০১:৩৯ পূর্বাহ্ন

তিরিশ বছর পূর্তি উদযাপন উপলক্ষে ত্রিপুরায় প্রথমবার স্রোত আয়োজিত ত্রিপুরা বাংলাদেশ বইমেলা :২০২৩

তিরিশ বছর পূর্তি উদযাপন উপলক্ষে ত্রিপুরায় প্রথমবার স্রোত আয়োজিত ত্রিপুরা বাংলাদেশ বইমেলা :২০২৩

তিরিশ বছর পূর্তি উদযাপন উপলক্ষে
ত্রিপুরায় প্রথমবার স্রোত আয়োজিত ত্রিপুরা বাংলাদেশ বইমেলা :২০২৩
প্রেসবিজ্ঞপ্তি।।আগরতলা ৭ অক্টোবর ২০২৩- সন্ধ্যা পাঁচ ঘটিকায় স্রোত প্রকাশনার ত্রিশ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে আগরতলা প্রেসক্লাবের তিনতলায় উদ্বোধন হয় দুদিনব্যাপী বাংলাদেশ -ত্রিপুরা বইমেলা :২০২৩ । কথা সাহিত্যিক দেবব্রত দেব প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে মেলার শুভ সূচনা করেন। স্বাগত ভাষণ স্রোত কর্ণধার গোবিন্দ ধর ।দেবব্রত দেব উনার বক্তব্যে বলেন স্রোত প্রকাশনার শুরুর দিন থেকেই গোবিন্দ ধরের সঙ্গে আমার পরিচয়। কুমারঘাটের মতো প্রত্যন্ত এলাকায় থেকে প্রকাশনার মতো একটি গুরুত্বপূর্ণ শৈল্পিক কাজে নিরন্তর লেগে থাকা সাহিত্যের প্রতি অগাধ ভালোবাসা কখনোই সম্ভব নয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত না থেকেও অনলাইনে মেলার সাফল্য কামনা করে বক্তব্য পেশ করেন রবীন্দ্র ভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকাশন বিভাগের অধ্যক্ষ রামকুমার মুখোপাধ্যায়। বাংলাদেশ থেকে আগত এবং মানুষ পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক আনোয়ার কামাল বলেন ভারত বাংলা মৈত্রীর ক্ষেত্রে স্রোত আয়োজিত আজকের বইমেলা একটি মাইলস্টোন হয়ে থাকলো। বিশেষ অতিথি রাজ্যের বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব তথা চিত্রশিল্পী স্বপন নন্দী বলেন সুস্থ সংস্কৃতির বিকাশে এই প্রচেষ্টা সত্যিই প্রশংসনীয়। উক্ত মেলায় বিহার,আসাম,নেপাল ও বাংলাদেশ থেকে লিটল ম্যাগাজিন সম্পাদক ও প্রকাশকরা তাদের বইপত্র নিয়ে উপস্থিত হয়েছেন । প্রধান অতিথি দেবব্রত দেব, নিয়তি রায়বর্মণ , সম্মানিত অতিথি বুক সেলার্স এন্ড পাবলিশার্স এসোসিয়েশনের সম্পাদক রাখাল মজুমদার,প্রকাশনা মঞ্চের সম্পাদক বিজন বোস বাংলাদেশ থেকে আগত পূর্বাপরের সম্পাদক হাসনাইন সাজ্জাদি, , পুরাতন পাতা প্রকাশের সম্পাদক রমজান বিন মোজাম্মেল,আসামের নব দিগন্ত প্রকাশনীর মিতা দাস পুরকায়স্থ সহ আরো অনেকেই সংক্ষিপ্তভাবে নিজেদের অভিমত ব্যক্ত করেন। অনুষ্ঠানে সদ্য প্রয়াত আসামের হাইলাকান্দির সাহিত্য পত্রিকার সম্পাদক কবি বিজিৎকুমার ভট্টাচার্য, বাংলাদেশের কবি আসাদ চৌধুরী, হাংরি জেনারেশনের কবি দেবী রায়, কথাসাহিত্যিক প্রদীপ সরকার ও সাংবাদিক পার্থ সেনগুপ্তর স্মৃতিচারণ করে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পন করেন অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকল সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিত্বরা । সংগীত পরিবেশন করেন বিশিষ্ট সংগীত শিল্পী গৌর দাস । আবৃত্তি নীড়ের পরিবেশিত আবৃত্তি অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকলের প্রশংসা অর্জন করে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশিষ্ট লোকগবেষক ও প্রাবন্ধিক অশোকানন্দ রায়বর্ধন। আগামীকাল তথা দ্বিতীয় দিন অনুষ্ঠান শুরু হবে সকাল দশটায়। থাকবে আলোচনা, কবি সম্মেলন , সংগীত ও বিশিষ্ট জনদের সম্মাননা পর্ব।আলোচনার বিষয় আশির জুনের দাঙ্গার প্রেক্ষাপটে ত্রিপুরার গল্পবিশ্ব এবং শতবর্ষে বিমল চৌধুরী। দুটি বিষয়ে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন বিমল চক্রবর্তী,দেবব্রত দেব,ড.সেবিকা ধর,অশোকানন্দ রায়বর্ধন।ত্রিপুরার লিটল ম্যাগাজিন ও স্রোতের তিরিশ বছর ত্রিপুরার লিটল ম্যাগাজিন আন্দোলন এবং বাংলাদেশের প্রকাশনা শিল্প।আলোচনায় অংশ গ্রহণ করেন কবি শুভ্রশংকর দাশ,আমিরুল ইসলাম, আনোয়ার কামাল, নিয়তি রায়বর্মন।কবি সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন হাসনাইন সাজ্জাদী মহোদয়।অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন অনুষ্ঠানের সভাপতি অশোকানন্দ রায়বর্ধন মহোদয়।ফটোসেশানে উপস্থিত সকলেই একই ফ্রম বন্দী হোন।স্রোতের সাহিত্য সাংস্কৃতিক মেল বন্ধনের অঙ্গ ত্রিপুরা বাংলাদেশ বইমেলা আগামীদিন বৃহত্তর রূপ হবে বলে সভাপতি বক্তব্যে তুলে ধরেন।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesbazar_brekingnews1*5k
© All rights reserved © 2020
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD