শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০৭:১০ পূর্বাহ্ন

অনুগল্পঃ বিধাতা

বলাইচাঁদ মুখোপাধ্যায়।।
————————————————————–
বাঘের বড় উপদ্রব। মানুষ অস্থির হইয়া উঠিল। গরু বাছুর, শেষে মানুষ পর্যন্ত বাঘের
কবলে মারা পড়িতে লাগিলো। সকলে তখন লাঠি সড়কি বর্শা বাহির করিয়া বাঘটাকে
মারিল। একটা বাঘ গেল- কিন্তু আরেকটা আসিল। শেষে মানুষ বিধাতার নিকট আবেদন করিল-
“ভগবান, বাঘের হাত হইতে আমাদের বাঁচাও।”

বিধাতা কহিলেন- আচ্ছা।
কিছু পরেই বাঘরা আসিয়া বিধাতার দরবারে নালিশ জানাইলো- ” আমরা মানুষের জ্বালায়
অস্থির হইয়াছি। বন হইতে বনান্তরে পলাইয়া ফিরিতেছি। কিন্তু শিকারী কিছুতেই আমাদের
শান্তিতে থাকিতে দেয় না। ইহার একটা ব্যবস্থা করুন। ”
বিধাতা কহিলেন, – ” আচ্ছা।” (…..)
সুশীল পরীক্ষা দিবে। সে রোজ বিধাতাকে বলে, “ঠাকুর, পাশ করিয়ে দাও।”
আজ সে বলিল, “ঠাকুর, যদি স্কলারশিপ পাইয়ে দিতে পার, পাঁচ টাকা খরচ করে হরির লুট
দেব–”
বিধাতা কহিলেন, – “আচ্ছা”
হরেন পুরকায়স্থ ডিস্ট্রিক্ট বোর্ডের চেয়ারম্যান হইতে চায়। কালী পুরোহিতের মারফত সে
বিধাতাকে ধরিয়া বসিল- এগারোটা ভোট আমার চাই। কালী পুরোহিত মোটা রকম দক্ষিণা
খাইয়া ভুল সংস্কৃত মন্ত্রের চোটে বিধাতাকে অস্থির করিয়া তুলিল। ভোটং দেহি– ভোটং
দেহি–
বিধাতা কহিলেন, আচ্ছা, আচ্ছা–।( ….)
কৃষক দুই হাত তুলিয়া কহিল, “দেবতা, জল দাও –”
বিধাতা কহিলেন, আচ্ছা। (……)
দার্শনিক কহিলেন- “হে বিধাতা, তোমাকে বুঝিতে চাই-”
বিধাতা কহিলেন, – “আচ্ছা”
চীন দেশ হইতে চীৎকার আসিল, “জাপানীদের হাত হইতে বাঁচাও প্রভূ”।
বিধাতা কহিলেন, – “আচ্ছা”
একটু ফাঁক পড়িতেই বিধাতা পার্শ্বোপবিষ্ট ব্রহ্মাকে জিজ্ঞাসা করিলেন, ” আপনার বাসায়
খাঁটি সর্ষের তেল আছে?”
ব্রহ্মা কহিলেন, “আছে, কেন বলুনতো?”
বিধাতা- আমার একটু দরকার। দেবেন কি?
ব্রহ্মা (পঞ্চমুখে) ” অবশ্য, অবশ্য।”
ব্রহ্মার বাসা হইতে ভাল সরিষার তৈল আসিল। বিধাতা তৎক্ষণাৎ তাহা নাকে দিয়া গাঢ়
নিদ্রায় অভিভূত হইয়া পড়িলেন।
আজও ঘুম ভাঙে নাই।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesbazar_brekingnews1*5k
© All rights reserved © 2020
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD