মঙ্গলবার, ২৩ Jul ২০২৪, ০৫:৫০ অপরাহ্ন

সাপকুকুরবিড়ালনামা -হাসনাইন সাজ্জাদী

সাপকুকুরবিড়ালনামা -হাসনাইন সাজ্জাদী

।।যা দেখি যা লেখি-১।।
সাপকুকুরবিড়ালনামা
-হাসনাইন সাজ্জাদী
।।
গ্রামের ভাষায় বলে সঙ্গ নেয়া।কেউ বলছে রাতে গাভীর ওলান থেকে দুধ খেয়ে ফেলে তাই দুধ রাজ।আবার কেউ বলছে এদের গাছে দেখা যায় তাই এরা গাছুয়া আলদ সাপ।তাদের বসবাস আমাদের বাড়ির আঙ্গিনায় আমাদের ছোটো ভাই এডভোকেট আনোয়ারুল ইসলামের আঙ্গিনায়।আবার কেউ কেউ আমার বা ঢাকার চাচার কিচেনের নিচের ফাঁকা জায়গায় দেখেছেন।
দু’টো সাপ সঙ্গ নেয়ার পরই দুই কিশোরের সামনে পড়ে যায়।একজন থরি কোচা এবং একজন কোচা নিয়ে আক্রমণ করে। ফলে একটি সাপ মারা পড়ে।বন্যপ্রাণী মারা নিষেধ।তাই এর ছবি ধারণ করা ও প্রচার করা থেকে বিরত থাকলাম।কয়েক বছর আগে এক সাপুড়ে মন্ত্রজপ করে বীণ বাজিয়ে কয়েকটি সাপ ধরেছিল।পরে অনেক সাপ বেরিয়ে আসা শুরু করলে মাপ চেয়ে আর না ধরার প্রতিশ্রুতি দিয়ে সে না ধরে চলে যায়।৪/৫ বছর সাপ না ধরতে নিষেধ করেছে সাপুড়ে সরদার।আমাদের কোনো ক্ষতি করছে না বলে আমরা এ নিয়ে ভাবি না।আবার মুরব্বিদের বিশ্বাস এটা আমাদের বাড়ির রাখাল।আমাদের বাড়িতে বেওয়ারিশ বিড়াল,সাপ,কুকুর ইত্যাদির অভয়ারণ্য চলছে।
আমাদের বাড়ির দক্ষিণ ও সুজন চাচাদের পূর্ব উত্তর দিকে কিছু ঝোপঝাড় তৈরি হয়েছে তাই সাপও বংশবৃদ্ধি করে চলেছে।
সাধারণ সাপ প্রায়ই আমাদের পাকঘরের দরোজার কাছে চলে আসে।এগুলো নির্ভয়া সাপ।রাতে যারা কবুতর তুলতে যায় তারা ভয় পায়।
দিন যায় যাক না…

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesbazar_brekingnews1*5k
© All rights reserved © 2020
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD