সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৩৯ অপরাহ্ন

বিজ্ঞান কবিতা আন্দোলন – হাসনাইন সাজ্জাদী

বিজ্ঞান কবিতা আন্দোলন – হাসনাইন সাজ্জাদী

বিজ্ঞান কবিতা আন্দোলন - হাসনাইন সাজ্জাদী

বিজ্ঞান কবিতা আন্দোলন
হাসনাইন সাজ্জাদী


বিজ্ঞান যুগে কবিতা হবে বিজ্ঞানভিত্তিক।কবিতার উপমা,উৎপ্রেক্ষা ও চিত্রকল্পে বিজ্ঞানমনস্কতা বিজ্ঞান কবিতার বৈশিষ্ট।বিজ্ঞান কবিতার আন্দোলন চলছে আশির দশক থেকে।আমি ‘নতুন প্রজন্মের কবিতা’নিয়ে গবেষণা করে আবিষ্কার করি – বিজ্ঞান যুগে কবিতা হবে বিজ্ঞান ভিত্তিক এবং বিজ্ঞান হবে কবিতা আশ্রিত।

মিয়া মুসা হোসেন সম্পাদিত দৈনিক পত্রিকায় তখন লিখতে শুরু করি ‘নতুন প্রজন্মের কবিতা’ শীর্ষক ধারাবাহিক নিবন্ধ।উল্লেখিত শিরোনামে নিবন্ধ প্রকাশিত হতে থাকলে এর পক্ষে বিপক্ষে কথা উঠে।ফলে তার জবাব আমাকে খুঁজতে হয় এবং আলোচনার কলেবর বৃদ্ধি পায়।

তখন উপমা হিসাবে বিজ্ঞানের আবিষ্কারের মধ্যে কম্পিউটার,পাস্টস্কোপ,রোবট এগুলোই ছিল মাত্র।প্রশন উঠে কবিতার আবার বিজ্ঞান কী?কবিতা আবেগের আর বিজ্ঞান বেগের। আমি তখন জবাব দিতে থাকি।বলতে থাকি,আবেগের সাথে বেগের সংযুক্তি এক অপুর্ব মিলন অধ্যায় হবে।

এই মিলন ঘটিয়ে আমি আমার বিজ্ঞান কবিতার সমৃদ্ধি ঘটাই।সময়ের আলোচিত ও জনপ্রিয় কবিদের মধ্যে কবি আল মুজাহিদী,কবি সোহরাব হাসান,কবি হালিম আজাদ,কবি নাসির আহমেদ,কবি ও ছড়াকার লুৎফর রহমান রিটন,কবি ও ছড়াকার আসলাম সানী,কবি রেজা উদ্দিন স্ট্যালিন প্রমুখদের ২২৫ ফকিরাপুল অনুপ্রাস কার্যালয়ে আমন্ত্রণ জানিয়ে সাপ্তাহিক আয়োজনে পর্যায়ক্রমে প্রধান অতিথি করে তাদের সামনে তা উপস্থাপন করি।

তাতে তাদের সায় ছিলো।কবিতার আরেক নাম সময়কে ধারণ এবং আগামীর নিবন্ধন।তাই বিজ্ঞান কবিতার বিরুদ্ধে কেউ জোরালো অবস্থান নিতে পারে নাই।দুএক জায়গায় কিছু কবিদের দ্বারা আমি নাজেহাল হই যা আমাকে পরবর্তীকালে বিশেষ মাহাত্ম্য দিয়েছে।তারও পরবর্তীকালে বিজ্ঞানের ব্যাপকতায় আর কেউ এর বিরুদ্ধে শক্ত অবস্থান নেয়নি।

২০১৫ সালের ১৩ ডিসেম্বর আমি জাপানের টোকিও ইউনিভার্সিটি অব ফরেন স্ট্যাডিজে science poetry in science age গবেষণাপত্র উপস্থাপনের মধ্য দিয়ে তা বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দেই।এ বছরই ডিসেম্বরে উত্তর আমেরিকার নর্থ ক্যারোলিনা রাজ্যের ‘ইভেন্ট হরাইজন’ম্যাগাজিন ৫০০ ডলারের বিজ্ঞান কবিতার প্রতি্যোগিতার আহবান কর।

২০১৮ সালের ২ জুলাই আমেরিকায় কবিতা মাস উপলক্ষ্যে নিউজ উইক ম্যাগাজিনের অনলাইন সংখ্যা বিজ্ঞান কবিতা সংখ্যা হিসাবে প্রকাশিত হয়।আমি বাংলাদেশ ও ভারতের অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং অসংখ্য সভা ও সেমিনারে বিজ্ঞান কবিতার প্রচারণা ও হাফ ডজন বই লিখে বিজ্ঞান কবিতাকে জীবন্ত বাস্তব করে তুলেছি।কবিতার বাঁকবদলে বিজ্ঞান কবিতা এখন সাহিত্যের গ্রহণযোগ্য অধ্যায়।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesbazar_brekingnews1*5k
© All rights reserved © 2020
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD