বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:২৯ পূর্বাহ্ন

ইদ মোবারক ও একটি প্রহসন – দয়াময় পোদ্দার

ইদ মোবারক ও একটি প্রহসন – দয়াময় পোদ্দার

ঈদ মোবারক এবং একটি প্রহসন।
গতকাল ঈদ পালিত হয়েছে সারা পৃথিবীর সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গেও। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গে ঈদ পালন ছিলো দেখবার মতো এক প্রহসনে ভরা। এবং দুটি জায়গায় বিশেষ করে। প্রথমটি রেড রোডে। ঈদ মুসলিমদের একটি বৃহত্তর ধর্মীয় উৎসব, কিন্তু রেড রোডে যেটা হলো, সেটা কি ঈদের নামাজ পালন নাকি তৃণমূল পার্টির মিটিং বুঝতে পারবেননা। যদিও আমার বলার বিষয় দ্বিতীয়টি নিয়ে।
এই দ্বিতীয় ঘটনাটা তিলজলার। ছিপিএম শ্বাসনের শেষ দিকে। রেজোয়ানুর রহমান হত্যাকান্ড। যেহেতু রাজ্য সরকার এটায় ইনভল্ভ ছিলো (প্রমান হয়নি, যেমন অনেক কিছুই হয়না ), তাই একে রাজ্যের দ্বারা হত্যাকান্ড বললেও ভুল হবেনা। তখন মমতা ব্যানার্জী এই হত্যাকাণ্ডকে রাজনৈতিক হাতিয়ার করে এর থেকে ফায়দা তুলেছিলেন। এবং প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন ক্ষমতায় এসে বিচার করবেন। পাঁচবছর করে দুইবার মেয়াদ শেষ করে তৃতীয়বার ক্ষমতায় রয়েছেন, কিন্ত রেজোয়ানুর রহমানের বিচার?
বেশ কয়েকমাস ধরে তাঁর থেকে মুসলিম ভোটাররা মুখ ফেরাতে শুরু করেছে, তার প্রমান সাগরদীঘি। তাই ঈদকে উপলক্ষ্য করে গতকাল গিয়েছিলেন রেজোয়ানুর রহমানের মা কেমন আছেন , তা দেখতে। সঙ্গে ভাইপো অভিষেক ব্যানার্জীও ছিলো। একজন সন্তানহারা মা আর কেমন থাকবেন, তিনি দুঃখিনীই আছেন!
কিন্তু আরও দুজন মানুষ কেমন আছেন, সেটাওতো জানা দরকার!যাঁদের এই হত্যাকান্ডের সঙ্গে যুক্ত থাকার জন্য নাম এসেছিলো।
তার একজন হলেন- অশোক তোডি, আর দ্বিতীয় জন হলেন- পুলিশ জ্ঞানবন্ত সিং।
মমতা ক্ষমতায় আসার পরে অশোক তোদি হয়েছেন তৃণমূলের ব্যবসায়িক সংগঠনের নেতা, আর সম্প্রতি জ্ঞানবন্ত সিংয়ের পদন্নতি হয়েছে।
এমন বিচার সম্ভবত পৃথিবীর ইতিহাসে দ্বিতীয়টি নেই।
শাসকের এমন দ্বিচারিতা খুব কমই দেখতে পাওয়া যায়।
( রেজোয়ানুর রহমানের হত্যার প্রতিবাদে ‘বিজ্ঞাপন ‘ নামে একটি কবিতা লিখেছিলাম তখন, বামফ্রন্ট সরকারের বিরুদ্ধে।)
একজন সন্তানহারা মায়ের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী এই প্রহসনটা ঈদের দিনে না করলেই কি পারতেন না?
রেড রোডে মুসলিমদের এক হতে বলে স্বপ্ন দেখালেন প্রধানমন্ত্রীকে চেয়ার থেকে ফেলে দেবার। তখন কি তাঁরা ভাবেননি, তৃণমূল এখন শুধু একটা আঞ্চলিক দল মাত্র? বরং রেড রোডে নামাজ পড়তে জড়ো হওয়া মুসলিমরা এটা শুনে দাবী করতে পারতেন যে, আপনি আগে রেজোয়ানুর রহমানের হত্যার বিচার করুন। সে দাবী না করে মমতা ব্যানার্জীর প্রহসনে নিজেদেরকে যুক্ত করে নিলেন!

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesbazar_brekingnews1*5k
© All rights reserved © 2020
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD