বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:২৪ পূর্বাহ্ন

আমি বাংলাসাহিত্যের গবেষকদের খুঁজছি -হাসনাইন সাজ্জাদী

আমি বাংলাসাহিত্যের গবেষকদের খুঁজছি
।।
নিজের ঢোল নিজে কতটুকু আর পেটানো যায়।তবুও অনেকটাই পিটিয়ে যাচ্ছি।অন্যেরটা জানিনা বলে হয়তো এটা ঘটছে।আবার অন্যরাও যে বেশ কিছু কাজ করে রেখেছে তাও নয়।তাই নিজেরটাই বেশি করে পিটাই।
বাংলাদেশের সাহিত্য আন্দোলন নিয়ে বিদেশের এম এ ক্লাস (বিশ্ববিদ্যালয় পাঠ্যক্রম)’র জন্য তত্ত্ব ও তথ্য সরবরাহ করতে গিয়ে দেখলাম লিখিত তথ্য তেমন আমার সংগ্রহে নেই।
বাংলাদেশের সাহিত্য আন্দোলনের মধ্যে সেডিস্ট মুভমেন্ট বা হ্যাংরি জেনারেশন আন্দোলনে যুক্ত ছিলেন শ্রদ্ধেয় কবি রবিউল ইসলাম ভাই ও কবি রফিক আজাদ ভাই প্রমুখ।মৌলাধুনিক কবিতার কথা বলেন শ্রদ্ধেয় জাতিসত্তার কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা ভাই।বিষয়টি নিয়ে আমি আমার ‘কবিতাবিজ্ঞান’ গ্রন্থে নাতিদীর্ঘ আলোচনা করেছি।গ্রন্থখানি তাকেই উৎসর্গ করা।
চট্টগ্রামে স্বাধীনতা উত্তরকালে শ্রদ্ধেয় কবি ও সাংবাদিক কাজী রফিক ভাইয়েরা একটি আন্দোলন করেছিলেন।সে বিষয় নিয়ে কোনো আলোচনা কোথায়ও চোখে পড়েনি।তবে রফিক ভাই লিখছেন একটি পূর্ণাঙ্গ গ্রন্থ যা প্রকাশের মিছিলে রয়েছে।শ্রদ্ধেয় কবি অসীম সাহা দাদার একখানি প্রবন্ধ গ্রন্থ আমার সংগ্রহে থাকলেও এখন খোঁজে পাচ্ছি না।গবেষক বায়েজীদ মাহমুদ ফয়সলের ‘বাংলাসাহিত্যে সিলেটের গৌরবগাথা’য় আমার বিজ্ঞান কবিতা আন্দোলনেরই জয়গান গাওয়া হয়েছে।
জাতীয় কবি সংগঠন অনুপ্রাসের হয়ে আমি ১৯৮৮ খ্রিষ্টাব্দে বিজ্ঞান কবিতা আন্দোলন শুরু করি যা বাংলাদেশের এখন প্রধান সাহিত্য আন্দোলন।
কবি রাজু আলাউদ্দিন ভাই বলেন ন্যানো কবিতার কথা।জাতীয় কবিতা পরিষদের উৎসবগুলো থেকে কিছু মৌলিক পরিবর্তন এসেছে।কবিতার বাঁকবদলে জাতীয় কবিতা পরিষদ বেশ কিছু অবদান রেখেছে।
ম্যাজিক লণ্ঠন বাঁকবদলের কথা বলে।তবে তা গবেষণার দাবি রাখে।
কবিতার ফরমেট নিয়ে কবি বকুল আশরাফ ভাই একটি গ্রন্থ লিখেছেন।সেখানে বিজ্ঞান কবিতার ফরমেট নিয়ে বা বাংলাদেশের উদ্ভুত কোনো ফরমেট নিয়ে আলোচনা চোখে পড়েনি।তাই আমি এ গ্রন্থকে বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে সাজেস্ট করতে পারছি না।না বোঝার কারণে হোক কিংবা জেনেশুনে হোক আমরা গবেষক হাসান রাউফুন ভাইকে নিয়ে কথা বলি না।অথচ বাংলা সাহিত্যকে বিশুদ্ধ করতে তাঁর একক আন্দোলন চোখে পড়ার মতো।তাঁর ‘ছড়া কবিতার ব্যাকরণ’, ‘বাংলা লেখার নিয়মকানুন’,’কবিতা লেখার নিয়মকানুন’,’প্রবন্ধ লেখার নিয়মকানুন’,’উপন্যাস লেখার নিয়মকানুন’,’গল্প লেখার নিয়মকানুন’ প্রভৃতি সৃজনশীল সাহিত্যে নতুন মাত্রা দিয়েছে।কিন্তু কোথাও এসবের আলোচনা নেই।আমি বিজ্ঞান কবিতা নিয়ে অনেক প্রবন্ধ গ্রন্থ লিখেছি।সবাই তা জানেন।কিন্তু কেউ তা নিয়ে লিখে না দু’একজন ছাড়া।কবি রীনা তালুকদার ও কবি লোকমান হোসেন পলা’র বইয়ে বিজ্ঞান কবিতার তথ্য আছে।ফয়সল সাহেবের কথা বলেছি।আর কেউ লিখেনি বিজ্ঞান কবিতা নিয়ে।কারো নিয়েই কেউ লিখে না।তাই আমি এখন আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সুপারিশ করার মতো কোনো প্রবন্ধ বা পূর্ণাঙ্গ গ্রন্থের নাম খোঁজে পাচ্ছি না।
আমি তাই বাংলাসাহিত্যের গবেষকদের খুঁজছি।অচিরেই আমি বিদেশের সিলেবাস জেনে নিয়ে “বাংলাদেশের সাহিত্য আন্দোলন” বিষয়ক গ্রন্থ লিখতে আশাবাদ রাখছি …

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesbazar_brekingnews1*5k
© All rights reserved © 2020
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD